ওসাসুনার বিপক্ষে হেরেই গেল বার্সা

প্রতিপক্ষের মাঠে বাজে সময় কাটানো বার্সেলোনা এবার হেরে গেছে ঘরের মাঠে। কাম্প নউয়ে শেষ সময়ের গোলে নাটকীয় জয় পেয়েছে ওসাসুনা।

লা লিগায় বৃহস্পতিবার রাতের ম্যাচে ২-১ গোলে হেরেছে কিকে সেতিয়েনের দল।

৩৭ ম্যাচে বার্সেলোনার পয়েন্ট ৭৯। দিনের অন্য ম্যাচে ভিয়ারিয়ালকে ২-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেওয়া রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৮৬।

শুরুতে স্বাগতিকদের চেপে ধরে ওসাসুনা। আক্রমণাত্মক ফুটবলের ফল দ্রুতই পায় দলটি। ধারে খেলতে আসা দুই খেলোয়াড়ের নৈপুণ্যে ষোড়শ মিনিটে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। ডিফেন্ডার এস্তুপিনানের চমৎকার ক্রসে বার ঘেঁষে জাল খুঁজে নেন বার্সেলোনার সাবেক মিডফিল্ডার হোসে আরনাইস।

পিছিয়ে পড়ার পর ধীরে ধীরে আক্রমণে যায় বার্সেলোনা। ২২তম মিনিটে সমতা প্রায় ফিরিয়ে ফেলেছিলেন লিওনেল মেসি। তার ফ্রি-কিক ক্রসবার কাঁপিয়ে চলে যায় বাইরে। ১০ মিনিট পর তার আরেকটি ফ্রি-কিক একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি।

একের পর এক আক্রমণে ওসাসুনার রক্ষণ ব্যস্ত রাখে বার্সেলোনা। সুযোগও আসে; তবে সেগুলো কাজে লাগাতে পারেননি মার্টিন ব্র্যাথওয়েট, আনসু ফাতিরা।৪৭তম মিনিটে জালে বল পাঠান ব্র্যাথওয়েট। তবে তাকে বল দেওয়া মেসি অফসাইডে থাকায় গোল হয়নি। সাত মিনিট পর খুব কাছ থেকে গোলরক্ষক বরাবর শট নিয়ে সুযোগ হাতছাড়া করেন বার্সেলোনা অধিনায়ক।

চতুর্থ ফ্রি-কিকে জালের দেখা পান মেসি। বাঁ দিকের বারে লেগে ভেতরে যাওয়া বল ঠেকানোর কোনো সুযোগই ছিল না ওসাসুনা গোলরক্ষকের। চলতি আসরে আর্জেন্টাইন তারকার এটি ২৩তম গোল।

৬৮তম মিনিটে জালে বল পাঠান লুইস সুয়ারেস। অফসাইডের জন্য গোল দেননি রেফারি। সাত মিনিট পর লাল কার্ড দেখেন ওসাসুনার এনরিক গালেগো।

যোগ করা সময়ে এনরিকে বারহার দারুণ ক্রসে আবার ওসাসুনাকে এগিয়ে নেন রবের্তো তরেস। সমতা ফেরানোর সুযোগ এসেছিল সুয়ারেসের সামনে। বল বারে মারেন তিনি, হারের হতাশায় মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *