লকডাউনে বিয়ে, করোনায় প্রাণ গেল শিক্ষিকার

লকডাউনের মধ্যেই বিয়ে করেছিলেন। সামাজিক দূরত্ব, মাস্ক সবকিছু মেনেই বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছিল। কিন্তু এক মাসের মধ্যেই করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলো হুগলির চন্দননগরের এক স্কুলশিক্ষিকার। মঙ্গলবার বিকেলে ব্যান্ডেল ইএসআই হাসপাতালে মৃত্যু হয় সৌমি সাহা নামে ওই শিক্ষিকার।

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছু দিন ধরেই শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন সৌমি। চিকিৎসার জন্য গত কয়েক দিন আগে চন্দননগর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। জ্বর ও শ্বাষকষ্টের জন্য তাকে ব্যান্ডেল ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে গত শনিবার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এর পর তাকে করোনা চিকিৎসার জন্য শ্রীরামপুরের শ্রমজিবী হাসপাতালে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় স্থানান্তর করা সম্ভব হয়নি। মঙ্গলবার বিকেল চারটার দিকে ওই শিক্ষিকার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চন্দননগর মুন্সিপুকুর এলাকার বাসিন্দা বছর চৌত্রিশের এই শিক্ষিকা পোলবার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ছিলেন। গত ১৪ জুন চন্দনগরেরই যুবক প্রসূন ঘটকের সঙ্গে বিয়ে হয় তার। প্রসূন কর্মসূত্রে মুম্বাইয়ে থাকতেন। বিয়ের জন্য সেই সময় মুম্বাই থেকে গাড়িতে করে চন্দননগরে ফেরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *