ফিফা থেকে প্রায় সাড়ে আট কোটি টাকা পাচ্ছে বাফুফে

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বের সব দেশের ফুটবল ফেডারেশনই ক্ষতিগ্রস্থ। এখনো আন্তর্জাতিক ফুটবল চালুর কোনো অনুমতি দেয়নি বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফা। কবে নাগাদ আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াবে সেই আভাসও নেই। ইউরোপে অবশ্য এরই মধ্যে ক্লাব ফুটবল চালু হলেও লকডাউনের জেরে ফাঁকা গ্যালারিতেই চলছে খেলা। ফুটবল সংশ্লিষ্ট বহু মানুষ হয়ে পড়েছে কর্মহীন।

এই অবস্থায় বিশ্বের সব দেশের ফুটবল ফেডারেশনের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে ফিফা, বাড়িয়ে দিয়েছে সাহায্যের হাত। করোনায় ক্ষতিগ্রস্থদের উদ্দেশ্যে ফিফা প্রায় ১৫০ কোটি মার্কিন ডলারের ত্রাণ তহবিল গঠন করেছে। আর সেখান থেকেই বাংলাদেশ পাবে ১০ লাখ ডলার (প্রায় ৮ কোটি ৪৮ লাখ টাকা)। বিশ্বের ২১১টি ফুটবল ফেডারেশনকেই এ সাহায্য দেওয়া হবে।

বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বিষয়টা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমরা আশা করছি জুলাইয়ের মধ্যেই এ টাকা পেয়ে যাবো।’ যদিও ফিফা এক সঙ্গে এতগুলো টাকা দেবে না। টাকা দেওয়া হবে দুই দফায়। চলতি বছরের জুলাইয়ে যে টাকার একটা অংশ পাবে বাফুফে। বাকি টাকা পেতে পারে আগামী বছরের জানুয়ারি মাসে।

এই অনুদান সঠিকভাবে ব্যবহার নিশ্চিতে কড়া নজরদারি থাকবে ফিফার। এছাড়া ফিফা প্রত্যেক দেশকে যে বার্ষিক অনুদান দিয়ে থাকে সেটাও অব্যাহত থাকবে। এই অনুদান ছাড়াও মহিলা ফুটবলের জন্য দেওয়া হবে ৫ লাখ ডলার। এছাড়া সদস্য দেশগুলোকে তাদের নিজস্ব আয় অনুযায়ী সর্বোচ্চ ৫ লাখ ডলার ঋণ দিতেও রাজি হয়েছে ফিফা। এই ঋণের টাকা করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ বিভিন্ন ফুটবল ক্লাব, খেলোয়াড় ও লিগ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের জন্য ব্যবহার করতে পারবে বাফুফে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *