৭ দিনেই করোনা ‘শেষ’ করার ওষুধ তৈরির দাবি রামদেবের

করোনাভাইরাসের চিকিৎসার জন্য বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন আবিষ্কারের লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসকরা। চীন, আমেরিকা ও ইউরোপের দেশগুলোর গবেষকরা এ নিয়ে দিনরাত কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এখন পর্যন্ত কোনো ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হলেও বেশ কয়েকটি ভ্যাকসিন ট্রায়ালের শেষ দিকের ধাপে রয়েছে। তবে করোনার এ সময়ে শতভাগ কার্যকরী আয়ুর্বেদিক মহৌষধ বানানোর ঘোষণা দিলেন ভারতের যোগগুরু রামদেব।

সোমবার (২২ জুন) আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হলো তার সেই আয়ুর্বেদিক মহৌষধের। তার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কেবল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো নয়, সবাইকে টেক্কা দিয়ে করোনা সংক্রমণ সারানোর ক্ষেত্রে এ ওষুধ শতভাগ কার্যকরী। এটির নাম করোনিল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রামদেব দাবি করেন, করোনাকে জব্দ করতে বিশ্বের প্রথম আয়ুর্বেদিক টিকা বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিতে বিশেষ অ্যাপ লঞ্চ করা হবে কিছু দিনের মধ্যেই।

তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯ এর চিকিৎসায় আমরা ক্লিনিক্যাল নিয়ন্ত্রণ, গবেষণা ও প্রমাণের ভিত্তিতে প্রথম আয়ুর্বেদিক ওষুধ তৈরি করে ফেলেছি। ওষুধের প্রতিক্রিয়া পরীক্ষা করে দেখতে আমরা একটি সমীক্ষা তথা ক্লিনিক্যাল কেস স্টাডি ও ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের আয়োজন করেছি। তাতে দেখা গেছে, মাত্র তিন দিনে ৬৯ শতাংশ রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন এবং সাত দিনে ১০০ শতাংশ করোনা রোগীই সেরে উঠেছেন।’

রামদেবের দাবি, গবেষণায় তার ওষুধ প্রয়োগের ফলে মৃত্যুর হার শূন্য এবং ১০০ শতাংশ সুস্থ হয়ে ওঠার হার দেখা গেছে।

তবে ভারত সরকারের অধীনে আয়ুষ মন্ত্রণালয় যোগগুরুর দাবির সঙ্গে একমত নয়। ইন্ডিয়ান মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল (আইসিএমআর) এবং আয়ুষ মন্ত্রণালয় উভয়ই যোগগুরুর বানানো ‘করোনিল’ ওষুধকে বাতিল করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *