বাংলাদেশে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি দেখে চীনা বিশেষজ্ঞদের হতাশা

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস নিয়ে জনসচেতনতা ও চিকিৎসা কার্যক্রম নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন সফররত চীনা বিশেষজ্ঞ দলের সদস্যরা।

দুই সপ্তাহের সফরের শেষ দিকে এসে শনিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে তারা বলেছেন, জনগণের মধ্যে সচেতনতা যেমন খুবই কম, তেমনই কম নমুনা পরীক্ষা।

সংখ্যায় অনেক কম হওয়া সত্ত্বেও চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মীরা এই মহামারী মোকাবেলার লড়াইয়ে কঠোর পরিশ্রম করছেন বলেও মন্তব্য এসেছে চীনা বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে।

গত বছরের ডিসেম্বর শেষে চীনের উহান শহরে প্রথম দেখা দেওয়ার কয়েক মাসের মাথায় সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ে নতুন করোনাভাইরাস।

কঠোর লকডাউনের মাধ্যমে চীন ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে পারলেও বৈশ্বিক মহামারীতে রূপ নেওয়ার পর বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা চীনকে ছাড়িয়েছে।

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সহায়তার অংশ হিসাবে গত ৮ জুন দুই সপ্তাহের বাংলাদেশে আসে চীনের বিশেষজ্ঞ দল।

এরপর গত কয়েক দিনে দেশের বিভিন্ন স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র পরিদর্শনের পাশাপাশি প্রায় সব অংশীজনের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে ১০ সদস্যের এই প্রতিনিধি দল।

চীনে ফেরার আগের দিন শনিবার ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ডিক্যাব) সদস্যদের সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন চিকিৎসক দলের সদস্যরা।

ভার্চুয়াল আয়োজনে ঢাকায় চীনা দূতাবাসের মিশন উপ-প্রধান হুয়ালং ইয়ান তাদের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন। অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন চিকিৎসক দলের দুই সদস্য শুমিং শিয়ানু ও হাইতাং লিউ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *