বিশ্বকাপ ফাইনাল পাতানো নিয়ে তদন্ত করছে শ্রীলঙ্কা সরকার

সাবেক শ্রীলঙ্কান ক্রীড়ামন্ত্রীর সন্দেহ ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল ইচ্ছে করে হেরেছে শ্রীলঙ্কা। অভিযোগ শুনে তদন্তে নেমেছে বর্তমান ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।

ভারত-শ্রীলঙ্কার ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচটি নিয়ে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে বিতর্কের শেষ নেই। বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচে শ্রীলঙ্কা দলের অন্যতম সদস্য মুত্তিয়া মুরালিধরন সেই ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিং করার পক্ষে ছিলেন না। সাবেক বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক অর্জুনা রানাতুঙ্গা ফাইনাল ম্যাচটি নিয়ে ফিক্সিংয়ের সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন। নতুন করে দেশটির সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রী মহিন্দানন্দ আলুথগামাগে একই অভিযোগ তুলেছেন।

এসব অভিযোগ এর আগেও উড়িয়ে দিয়েছেন সাবেক দুই লঙ্কান অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনে ও কুমার সাঙ্গাকারা। এবারও তাই করেছেন। কিন্তু শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবার হালকাভাবে নিচ্ছে না। তদন্ত করে সত্য বের করতে চায় দেশটির ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। ক্রীড়ামন্ত্রী দুলাস আলাহাপ্পেরুমা তদন্ত কমিটি গঠনের আদেশ দিয়েছেন। প্রতি দুই সপ্তাহ পর তদন্ত কোন পর্যায়ে আছে সেটাও জানাতে বলা হয়েছে। আজ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

আলুথগামাগে এক স্থানীয় টিভি চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে বিশ্বকাপ ফাইনালের ম্যাচের ব্যাপারে বলেছিলেন, ‘২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল পাতানো ছিল। এটা হয়েছিল যখন আমি ক্রীড়ামন্ত্রী ছিলাম। আমি দায়িত্বের সঙ্গে বলছি; তবে দেশের স্বার্থে বিস্তারিত জানাচ্ছি না। ২০১১ সালে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ, যেটা আমরা জিততে পারতাম আগে থেকেই সেটা পাতানো ছিল।’

সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রীর অভিযোগের জবাবে চুপ থাকেননি ফাইনাল ম্যাচে সেঞ্চুরি করা মাহেলা। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘নির্বাচন কি খুব কাছে? মনে হচ্ছে সার্কাস শুরু হয়ে গেছে। নাম ও প্রমাণ কই?’ ফাইনালে অধিনায়কত্ব করা সাঙ্গাকারার চুপ থাকেননি। ক্রীড়ামন্ত্রীকে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রমাণ সহ আইসিসির কাছে যেতে বলেছেন তিনি, ‘নিজের প্রমাণ আইসিসি ও দুর্নীতি বিরোধী ইউনিটের কাছে নিয়ে যাওয়া দরকার, সেখানে অভিযোগের পূর্ণ তদন্ত হতে পারে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *