এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ শনাক্ত ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। মারা গেছেন ৪০ জন। আর গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৫৪৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট মারা গেলেন ৬৫০ জন।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে আজ রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এমন তথ্য জানানো হয়। নতুন করে মারা যাওয়া ৪০ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৩ জন ও নারী ৭ জন। সব মিলে দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৪৭ হাজার ১৫৩ জন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দেশে করোনায় সংক্রমিত ১ হাজার ৭৬৪ জন শনাক্ত হওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। মারা গিয়েছিলেন ২৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪০৬ জন। এ নিয়ে ৯ হাজার ৭৮১ জন সুস্থ হয়েছেন।

ব্রিফিংয়ের তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ হাজার ৮৭৬ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। গতকাল ৯ হাজার ৯৯৭ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ৩ লাখ ৮ হাজার ৯৪০টি নমুনা।

দেশে এখন ৫২টি ল্যাবে (পরীক্ষাগার) করোনা পরীক্ষা করা হয়। গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তি শনাক্তের ঘোষণা আসে। আর ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

করোনার ঝুঁকি এড়াতে স্বাস্থ্যবিধি মানায় জোর দিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা। অনলাইন ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, লকডাউন উঠে গেছে। এখন সবাইকে সাবধান থাকতে হবে। ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে একটি গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে, করোনা প্রতিরোধে যা সবাইকে মেনে চলতে হবে। মাস্ক পড়া অত্যাবশ্যক।

আজ বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস। সবাইকে তামাক ছাড়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ধূমপায়ীরা করোনায় আক্রান্ত হলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ার ঝুঁকি বেশি এবং মৃত্যুঝুঁকিও বেড়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *