ইনস্টাগ্রামে দল ফাঁস করে বিপাকে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

নিছক মজা করেই পরের ম্যাচের একাদশ নিজের ইনস্টাগ্রামে দিয়েছিলেন স্মিথ। কিন্তু এই ভুলের জন্য বড় মূল্য চুকাতে হয়েছে তাঁকে।

এটা তো আর শৌখিন খেলা নয় যে বিষয়টি নিয়ে আপনি মজা করবেন বা যা খুশি তাই করেন! ক্রিকেটে এখন অনেক নিয়মকানুন। এটা করতে পারবেন না, ওটা করা বারণ। এসব নিয়ম না মানলেই শাস্তি। অস্ট্রেলিয়ার এক নারী উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান নিছক ভুল করেই তাঁর দলের পরের ম্যাচের একাদশ নিজের ইনস্টাগ্রামে দিয়েছিলেন। কিন্তু এর জন্য অনেক বড় মূল্য চুকাতে হলো এমিলি স্মিথকে। এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন তিনি। এর ৯ মাস অবশ্য স্থগিত নিষেধাজ্ঞা।

হোবার্ট হ্যারিকেনের উইকেটকিপার খুব বেশি আগে নয়, সিডনি থান্ডারের বিপক্ষে একাদশটি তিনি ইনস্টাগ্রামে দিয়েছিলেন ঘণ্টা কয়েক আগে দিয়েছিলেন। কিন্তু ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) দুর্নীতি-বিরোধী নিয়ম অনুযায়ী ওইটুকুই শাস্তি পাওয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল। সিএর নিয়ম অনুযায়ী কোনো কিছুর বিনিময়ে বা বিনিময় ছাড়াও দলের ভেতরকার কোনো তথ্য ফাঁস করা যাবে না। তবে স্মিথের কোনো বাজে উদ্দেশ্য ছিল না বলেই মনে করেন অস্ট্রেলিয়ার নৈতিকতা কমিটির প্রধান শন ক্যারল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × two =

Translate »