কিশোরীর সন্তান প্রসব, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় বাবা-মা

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলায় ১২ বছরের এক কিশোরীর কন্যা সন্তান প্রসব করার ঘটনা ঘটেছে। গত ৬ নভেম্বর রাতে উপজেলার চরদেওকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সন্তানের পিতৃ পরিচয় নিয়ে এলাকায় চলছে গুঞ্জন। খবর পেয়ে পাকুন্দিয়া থানা পুলিশ ১২ নভেম্বর রাতে কিশোরীর বাবা-মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে এসেছে। কিশোরী ও নবজাতক শিশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ১২ বছরের কিশোরীটির বাবা হাবিবুর রহমান একজন ভণ্ড ফকির। সে একাধিক বিয়েও করেছে। এলাকাবাসীর কাছে নিজের মেয়েকে অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি পেটে টিউমার হয়েছে বলে প্রচার করেছে।

কিশোরীর চাচা ব্যাংক কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, ভাতিজির সন্তান প্রসবের পর তার বাবার কাছে কারণ জানতে চাইলে প্রতি উত্তরে হাবিবুর রহমান জানান, গায়েবীভাবে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে বাচ্চা হয়েছে। বাচ্চাটি আল্লাহর দান।

পাকুন্দিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো.মফিজুর রহমান জানান, রাত ১০টার দিকে কিশোরীর পিতা হাবিবুর রহমান ও তার স্ত্রী মাহ্ফুজা আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। কিশোরী ও নবজাতককে পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two + ten =

Translate »