মাঠ পর্যায়ের আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা বুয়েট শিক্ষার্থীদের

আবরার হত্যার অভিযোগপত্র দাখিলের পর আসামিদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের আগ পর্যন্ত কোনো ধরনের একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেবেন না বুয়েট শিক্ষার্থীরা। এদিকে  বুধবার (১৬ অক্টোবর) থেকে মাঠ পর্যায়ের আন্দোলন স্থগিত করেছেন শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) বিকেলে বুয়েট ক্যাম্পাসে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

তারা জানান, অধিকাংশ দাবি পূরণ হওয়ায় আগামীকাল থেকে মাঠ পর্যায়ের আন্দোলনের ইতি টানা হলেও বুয়েটের কোনো একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেবেন না শিক্ষার্থীরা। চার্জশিটের পর আসামিদের বুয়েট থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করার আগ পর্যন্ত তারা একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেবেন না।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমাদের যে দাবিগুলো, সেগুলো প্রশাসন কার্যকর করছে কিনা সেটা আমরা পর্যবেক্ষণ করবো। আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা চার্জশিট দাখিলের পর সেটার ভিত্তিতে অপরাধীদের একাডেমিকভাবে স্থায়ী বহিষ্কার হওয়ার আগ পর্যন্ত বুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থীরা কোনো রকম একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেবে না। আমরা খুনিদের সাথে একাডেমি কার্যক্রম শেয়ার করতে পারবো না।

তারা বলেন, গতকাল আমাদের বুয়েট ক্যাম্পাসে পূর্ণাঙ্গ নিরাপত্তায় সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আমাদের ১০ দফা দাবি ছিল, এরমধ্যে ১, ৪ ও ৫ এই তিনটা দাবি ছিলো আইন প্রয়োগকারী সংস্থার উপর। ইতিমধ্যে ১৬১ ও ১৬৭ ধারায় অনেকে গ্রেফতার হয়েছেন। জবানবন্দি দিয়েছেন অনেকে। আবার অনেকে রিমান্ডও মঞ্জুর হয়েছে। এজন্য আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাও সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

এ ক্ষেত্রে বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তিনি বিশেষভাবে তৎপর ছিলেন বলে এত দ্রুতভাবে অগ্রগতি সাধিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − seven =

Translate »